Comilla TV - The First online TV of Comilla

মালয়েশিয়ায় আটক হলেন কুমিল্লার ‘চিটার বাবুল’

কুমিল্লা টিভি ডেস্ক

কুমিল্লা.টিভি

প্রকাশিত : ০৫:১৭ পিএম, ৭ ডিসেম্বর ২০২০ সোমবার

মালয়েশিয়ায় শ্রমিকদের ভুয়া ভিসা করিয়ে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন এসপিআরএমের বিশেষ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন শহীদুল ইসলাম ওরফে চিটার বাবুল নামে এক বাংলাদেশি ও তার স্ত্রী। এর আগে দেশটির দূর্নীতি দমন কমিশন ইমিগ্রেশন এর বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা কে গ্রেফতার করা হয়েছিল দূর্নীতির অভিযোগে।
বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে বিশেষ অভিযানে কুয়ালালামপুরের নিজ বাসা থেকে আটক করা হয় শহীদুল ইসলাম বাবুল ও তার স্ত্রী নীলিমাকে। বাবুলের বাড়ি বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলায়।

অভিযোগ রয়েছে, মালয়েশিয়ার কয়েকজন দুর্নীতিপরায়ণ ইমিগ্রেশন কর্মকর্তার সহযোগিতায়
রিপ্লেসমেন্ট ভিসা করে দিয়েছেন চিটার বাবুল। দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুরের ১১৫ নম্বর কাম্পুং পান্দানে তার কার্যালয়ে ভিসা কার্যক্রম চলেছে গত বছরের শেষ থেকে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীদের বর্ণনায় জানা যায়, প্রতিটি ভিসার জন্য ৮ থেকে ১০ হাজার রিঙ্গিত অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় ১ লাখ ৬০ হাজার থেকে ২ লাখ টাকা পর্যন্ত নিয়েছেন বাবুল। ভিসা করার পর ইনডোর্স করার কথা বলে নিয়েছেন আরো দেড় হাজার রিঙ্গিত বা ৩০ হাজার টাকা।
জানা গেছে, শহীদুল ইসলাম বাবুল ও তার স্ত্রী নীলিমা ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে শ্রমিকদের সঙ্গে প্রতারণা করে বিশাল অর্থের মালিক হয়েছেন। প্রতারণার এই টাকায় কুয়ালালামপুরে বিলাস বহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত তারা।

২০১৯ সালে কুয়ালালামপুর ঘুরে সরেজমিনে বাবুলের প্রতারণার অভিযোগ নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।
এর আগে ২০০৭ এ কয়েক হাজার শ্রমিকের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে আটক হন বাবুল ও তার স্ত্রী। ওইসময় থেকে মালয়েশিয়ায় চিটার বাবুল নামেই পরিচিতি পান শহীদুল ইসলাম বাবুল।