Comilla TV - The First online TV of Comilla

নবীনগরে গৃহবধুকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন, ৯৯৯-তে ফোন করে মুক্তি

কুমিল্লা.টিভি

প্রকাশিত : ০৭:১০ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০২০ বুধবার

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের নোয়াগ্রামে আসমা বেগম (৩২) নামের এক গৃহবধূকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নগ্ন করে লোহার রড দিয়ে অমানবিকভাবে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নির্যাতন চলাকালে ৯৯৯ ফোন দেয়া হলে পুলিশ তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করে। বর্তমানে গুরুতর আহত ওই নারী হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন।

এদিকে এ ঘটনায় সোমবার থানায় মামলা হওয়ার দুদিন পর আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও, পুলিশ ‘ঘটনাটির মিমাংসার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে’ উল্লেখ করে আসামিদের ধরছেনা বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) মেহেদী হাসান আজ বুধবার দুপুরে ঘটনাটি ‘নির্মম ও মধ্যযুগীয় নির্যাতন’ বলে উল্লেখ করে দ্রুত অপরাধীদের গ্রেফতার করা হবে বলে নিশ্চিত করেন।

মামলার এজাহার ও এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, নোয়াগ্রামের বাসিন্দা নজরুল ইসলামের স্ত্রী আসমা বেগমকে রবিবার বিকেলে পাশের শরীফ ডাক্তারের বাড়িতে ডেকে নেয়া হয়। সেখানে শরীফ ডাক্তারের স্ত্রী সীমা আক্তার ও তার ভাই শাহেদ সরকার গৃহবধূ আসমার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এক পর্যায়ে গৃহবধূকে নগ্ন করে লোহার রড দিয়ে ও বোতল দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যতন চালায়। ওই সময় আসমা একাধিকবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে নির্যাতনকারীরা পানি ঢেলে আসমাকে কয়েকবার জ্ঞান ফিরিয়ে এনে পুনরায় মারধর করতে থাকেন। এক পর্যায়ে আসমার আর্ত চিৎকারে তার স্বামী নজরুল তার স্ত্রীকে বাঁচানোর জন্য ৯৯৯ ফোন করেন। ফোন পেয়ে নবীনগর থানার এএসআই মো. আশরাফ উদ্দিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আসমাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এই বিভাগের জনপ্রিয়