Comilla TV - The First online TV of Comilla

কুমিল্লার সেই ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

শরীফ আহমেদ মজুমদার কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লা.টিভি

প্রকাশিত : ০৭:৫৬ পিএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ রবিবার

কুমিল্লার দেবিদ্বারে নিজ বাড়িতে ডেকে এনে সালিসের নামে এক মাদরাসার শিক্ষক, নারী ও শিশুকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার ঘটনায় সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন মো. জাহাঙ্গীর আলম নামের এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান। বরখাস্ত হওয়া জাহাঙ্গীর আলম উপজেলার রাজামেহার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং একই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি।তিনি নানাহ রকম ঘটনা ঘটিয়ে জেলার মধ্যে আলোচিত সমালোচিত হয়েছেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউপি-১ অধিশাখার উপ-সচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এই তথ্য জানা গেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৯ এপ্রিল উপজেলার বেতরা গ্রামের গৃহবধূ আমেনা আক্তারের মৌখিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে গ্রাম পুলিশ পাঠিয়ে ওই গৃহবধূর স্বামী মাদরাসা শিক্ষক মাওলানা আজিজুর রহমানকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম তার বাড়িতে ডেকে আনেন। পরে বিচারের নামে ওই শিক্ষককে পিটিয়ে রক্তাক্ত করেন চেয়ারম্যান। এ ঘটনায় গত ১৬ এপ্রিল দেবিদ্বার থানায় মামলা করেন আহত ওই শিক্ষক।

এদিকে, পৃথক আরেকটি ঘটনায় একই ইউনিয়নের উখাড়ী গ্রামের ওয়ালি উল্লাহর স্ত্রী কাজল বেগম ও তার শিশু পুত্র শরীফকে একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ৩ এপ্রিল ওই চেয়ারম্যান একইভাবে ডেকে এনে পিটিয়ে আহত করেন। এ ঘটনায় আহত কাজল বেগম বাদী হয়ে গত ১৯ এপ্রিল চেয়ারম্যান ছাড়াও তার ভাতিজা শামীমের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই দুটি মামলার তদন্ত শেষে থানা পুলিশ আদালতে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে। এরপর আদালতে তা গৃহীত হয়। সর্বশেষ গত ১২ আগস্ট দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাকিব হাসান স্বাক্ষরিত একপত্রে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন মোতাবেক চার্জশিটভুক্ত ওই চেয়ারম্যানকে বরখাস্ত করার প্রস্তাবনা সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরে প্রেরণ করা হয়।

মামলার বাদী আহত শিক্ষক মাওলানা আজিজুর রহমান জানান, চেয়ারম্যান সাময়িক বরখাস্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে আমি ন্যায় বিচার পেতে যাচ্ছি। আশা করি তিনি চূড়ান্তভাবেই বরখাস্ত হবেন। তার মতো জুলুমবাজের কঠোর শাস্তির দাবী জানাচ্ছি।

এই বিভাগের জনপ্রিয়